সিলেটের তিন জেলায় আরো ৭৬ জনের করোনা শনাক্ত


সিলেট বিভাগের তিন জেলায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে চিকিৎসক, পুলিশ, শিশুসহ ৭৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ৫১ জন, সুনামগঞ্জে ১৮ জন এবং হবিগঞ্জ জেলায় সাতজন রয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাব এবং ঢাকার ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। 

সিলেট জেলায় প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড হচ্ছে। বুধবার জেলায় একদিনে সর্বোচ্চ ৪২ জন শনাক্ত হয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার এ সংখ্যা ৫১ জনে দাঁড়ালো। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় রাত পৌনে ১২টায় বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে ১৮৪ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৫১ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। আক্রান্তরা সিলেট জেলার বাসিন্দা। তবে তারা কোন কোন উপজেলার তা জানাতে পারেননি তিনি। 

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ পরীক্ষায় ১৮টি পজিটিভ এসেছে। নতুন শনাক্ত হওয়া ১৮ জনই সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জিয়াউল ফারুক জয়। তিনি জানান, এদিন ল্যাবে মোট ১৭০টি নমুনা পরীক্ষার করে ১৮টি পজিটিভ পাওয়া যায়।

সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. শামস উদ্দিন করোনা শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আক্রান্তদের মধ্যে এক চিকিৎসক, চার পুলিশ সদস্য ও দুই শিশু রয়েছেন। তিনি জানান, নতুন শনাক্ত হওয়া পুলিশের ৪ সদস্যের সকলেই জেলা পুলিশ লাইন্সে কর্মরত। আর যে চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিনি ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত। এছাড়া সদরে দুইজন শিশু রয়েছে, যাদের একজনের বয়স ৩ বছর ও অন্যজনের ৫ বছর। এছাড়া দোয়ারাবাজার উপজেলায় ৪ জন, ছাতকে চিকিৎসকসহ ৬ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ১ জন এবং তাহিরপুর উপজেলায় ১ জন করে রয়েছেন। আক্রান্ত সকলকেই আইসোলেশনে নেয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। 

হবিগঞ্জে চিকিৎসকসহ নতুন করে আরো ৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন মখলিছুর রহমান উজ্জ্বল। তিনি জানান, ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টার থেকে এই ৭ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন চিকিৎসকও আছেন। শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে হবিগঞ্জ সদরের ৬ জন এবং চুনারুঘাট উপজেলার ১ জন। এনিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা মোট ১৭১ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭৫ জন, মারা গেছেন ১ জন।

Share Button